আজ মঙ্গলবার, ২২ সেপ্টেম্বর ২০২০, ৭ আশ্বিন ১৪২৭           আমাদের কথা    যোগাযোগ

শিরোনাম

  প্রতিনিধি হইতে ইচ্ছুকরা ০১৭৪৭৬০৪৮১৫ নাম্বারে যোগাযোগ করুন।  

আত্মসম্মানের বোবা কান্না


আত্মসম্মানের বোবা কান্না

প্রকাশিতঃ রবিবার, ডিসেম্বর ৯, ২০১৮   পঠিতঃ 303912


‘ছোটবেলায় মানুষ হয়েছি বড় বোনের কাছে। লেখাপড়া ভাগ্যে জোটেনি। আমার বাবার জমি বিক্রি করে আমার বোনের দেবর লেখা পড়া শিখেছে। আমার শরীরের রক্ত বিক্রি করে হলেও আমার দুইটি ছেলেকে লেখাপড়া শেখাবো।’ কথাগুলো বলছিলেন ঢাকার বাসাবো এলাকার শেখ আকরাম আলী। তার দুইটি ছেলে লেখাপড়া করে কদমতলা পূর্ব বাসাবো স্কুল এন্ড কলেজে। আত্মসম্মানের কারণে না খেয়ে থাকলেও বলতে পারেন না কাউকে। একটি বাড়ির আন্ডার গ্রাউন্ডে একটু কম টাকার বাসায় ভাড়া থাকেন তিনি। স্ত্রী ও দুই সন্তানকে নিয়ে ৪ জনের সংসার। যে ঘরে থাকেন সেখানে মেঝে দিয়ে পানি ওঠে, আর বৃষ্টির সময় ঘরের মেঝেতে প্রায় হাঁটু পানি থাকে। আলো বাতাস খুবই কম; পরিবারের সদস্যদের বিভিন্ন প্রকার রোগব্যাধি লেগেই থাকে। 

৭মাস আগেও বায়তুল মোকাররম মার্কেটে একটি জুয়েলারী দোকানে কাজ করতেন আকরাম আলী। কিন্তু মালিক লোকসানের কারণে ব্যবসা বন্ধ করে দেন। পঞ্চাশোর্ধ আকরাম আলী কাজ খুঁজছেন কিন্তু কোন কাজ না পেয়ে মানবেতর জীবন যাপন করছেন। প্রায় ২০ বছর জুয়েলারী দোকানে কাজ করেও নিজের জায়গা-জমি, অর্থ-সম্পদ বলতে কিছুই নেই।

তার বড় ছেলে আগামী বছর এসএসসি পরীক্ষা দিবে আর ছোট ছেলে ৯ম শ্রেণির বার্ষিক পরীক্ষা দিচ্ছে। দুইটি ছেলেই মেধাবী। ছোট ছেলে জান্নাতুল নাঈম পি.এস.সি ও জে.এস.সি উভয় পরীক্ষায় জিপিএ ৫ পেয়েছে। আর বড় ছেলে জান্নাতুল ফেরদৌস শুভ পি.এস.সি পরীক্ষায় জিপিএ ৫ এবং অত্যন্ত অসুস্থ অবস্থায় জে.এস.সি পরীক্ষা দিয়ে ৪.৭ পেয়েছে। নাঈম বিজ্ঞান আর শুভ ব্যবসা শিক্ষা শাখায় পড়ে। নাঈম স্বপ্ন দেখে ভবিষ্যতে লেখাপড়া শিখে ইঞ্জিনিয়ার হবে আর শুভ স্বপ্ন দেখে আর্মি অফিসার বা ব্যাংকার হবে। 

সন্তানের জন্য তাদের মা পারভীন আক্তার কাজ নিয়ে ছিলেন একটি দোকানে কিন্তু সেখানে ভাল বেচাকেনা না হওয়ায় এবং ছেলেদের লেখাপড়ার ক্ষতি হবে ভেবে আর কাজে যাননি। মা-বাবা কেউই লেখাপড়া জানেন না। আজ তার মাশুল দিচ্ছেন হাঁড়ে হাঁড়ে। তারা নিজেদের হাজার কষ্টের মাঝেও সস্তানদের মুখে হাঁসি দেখতে চান। তাদেরকে লেখাপড়া শেখাতে চান। শুধু বারবার বলছিলেন, ‘আমার সন্তানদের জন্য দোয়া করবেন।’ আত্মসম্মানের জন্য কারও কাছে কিছু চাইতেও পারেন না। নাঈম আর শুভর মা নিজের দুঃখের কথাগুলো বলছিলেন আর কাঁদছিলেন। এই কান্নায় শব্দ হয়তো অন্য কারও কানে পৌছাবে না।  

এম. এ. আলিম খান /


মন্তব্য করুন

কালীগঞ্জে সুপারি গাছ থেকে পড়ে মৃত্যুর সঙ্গে পাঞ্জা লড়ছে সিয়াম!

কারাগার থেকে জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্র এহসান হাবিব সুমন এর খোলা চিঠি

এসএসসি পরীক্ষাঃ বাংলা দ্বিতীয় পত্রে বেশি নম্বর সহজেই...

যেকোন সময় ঘোষণা হতে পারে ছাত্রদলের কেন্দ্রীয় কমিটি

যশোরে এবার সরকারি চালসহ ঘাতক দালাল নিমূল কমিটির নেতা আটক

৫০ বছর ধরে দল করেও সুবিধা বঞ্চিত আ'লীগের প্রচার সম্পাদক নূরুল হক

যশোরের রাজগঞ্জে ৫৬ যুবকের উদ্যোগে ভাসমান সেতু র্নিমাণ

লালমনিরহাটে এক বিধবা মা বাইসাইকেল চালিয়ে ৪২ বছর স্বাস্থ্যসেবা দিচ্ছেন

কেশবপুরের শাহীনের সেই ভ্যানটি উদ্ধার, আটক তিনজন

নোংরা রাজনীতির শিকার যশোরের এমপি স্বপনের ছেলে শুভ

ব্যাচমেট হিসেবে সাইয়েমার পক্ষে সকলের কাছে ক্ষমা চাইলেন কেশবপুরের এসিল্যাণ্ড

নারী সহকারীর সঙ্গে ডিসির অশ্লীল ভিডিও ভাইরাল, সংবাদ না করার অনুরোধ

আমাদের নিউজ পোর্টাল আপনার কেমন লাগে ?

  খুব ভালো

  ভালো

  খুব ভালো না

  ভালো লাগে না

অফিস ঠিকানা  

আর এল পোল্ট্রি, উপজেলা রোড, কেশবপুর বাজার, যশোর।
মোবাইলঃ   ০১৭১৯২৮০৮২৭
ইমেইলঃ   info@kopotakkhonews24.com

প্রকাশক ও সম্পাদক 

মোঃ মাহাবুবুর রহমান (মাহাবুর)

মোবাইলঃ   ০১৭১৯২৮০৮২৭
ইমেইলঃ   info@kopotakkhonews24.com

সোশ্যাল মিডিয়ায় আমরা