আজ শুক্রবার, ৫ জুন ২০২০, ২২ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৭           আমাদের কথা    যোগাযোগ
Owner

শিরোনাম

  জনপ্রিয় অনলাইন নিউজ পোর্টাল কপোতাক্ষ নিউজের জন্য বাংলাদেশের প্রতিটি জেলা ও উপজেলা পর্যায়ে প্রতিনিধি নিয়োগ চলছে। আগ্রহী প্রার্থীরা ০১৭১৯২৮০৮২৭ নাম্বারে যোগাযোগ করুন।  

পটুয়াখালী থেকে বিলুপ্ত প্রায় ঐতিহ্যবাহী ঘুড়ি উড়ানো


পটুয়াখালী থেকে বিলুপ্ত প্রায় ঐতিহ্যবাহী ঘুড়ি উড়ানো

প্রকাশিতঃ শনিবার, জানুয়ারী ১২, ২০১৯   পঠিতঃ 322812


 

উজ্জ্বল শিকদার, স্টাফ রিপোর্টারঃ

পটুয়াখালী থেকে বিলুপ্ত হয়ে গেছে ঘুড়ি উড়ানোর প্রাচীন ঐতিহ্য যা গ্রাম-বাংলার প্রতিটি মানুষের মনে মিশে ছিল একসময় ঐতিহ্য আর সংস্কৃতি মত এ খেলা। রাত জেগে পুঁথির গল্প শোনা কিংবা বাইস্কোপ দেখাসহ নানা গ্রামবাংলার ঐতিহ্য। মায়ে-ঝিয়ে একসাথে বসে নকশি কাঁথায় ফুল সেলাইকরা অথবা শীতলপাটি বোনা। কিশোর-কিশোরীর লুকোচুরি খেলা, পুকুরে ঝাপ দেয়া, কিংবা ভরদুপুরে না ঘুমিয়ে মায়ের চোখ ফাঁকি দিয়ে ঘুড়ি উড়ানো। এগুলো এখন শুধুই স্মৃতিচারণ, সবই বিলুপ্তির পথে। আগেকার দিনে গ্রামগুলোতে গ্রীস্মকাল

শুরু হতে না হতেই রং বেরংয়ের ঘুড়ি আকাশ ছোয়ে যেত। ছোট্ট ছেলেটি তার বড় ভাই কিংবা বাবার কাছে বায়না ধরতো ঘুড়ি বানিয়ে দিতে হবে। কিশোর ছেলেটি মায়ের কড়া নজর

এড়িয়ে ভরদুপুরে লম্বা লেজবিশিষ্ট ফনা মেলা সাপ আকৃতির সাপাহার ঘুড়িটি নিয়ে বন্ধুদের সাথে ছুটতো মাঠের দিকে। অনেক যুবক এবং মাঝ বয়সী লোককেও দেখা যেত ঘুড়ি তৈরি করে মোটা সুতা দিয়ে লাটাই গাছে বেঁধে

ছেড়ে দিতেন অনেক দূরের আকাশে। ঘুড়ির সাথে বেঁধে দিতেন অন্য এক প্রকার সুতা, যেটায় বাতাস লেগে এমন একটা মধুর শব্দ হত যা ঘুড়ি আকাশে হারিয়ে গেলেও শব্দটা শোনা যেত। বিকাল থেকে সারারাত অবধি ঘুড়ি আপন

গতিতে আকাশে উড়তো। ঘুড়ি, ডাহুক ঘুড়ি, ফনামেলা সাপাহার ঘুড়ি বিকালের আকাশটা সুশোভিত করে রাখতো। শিশু-কিশোরদের বিনোদনের মাধ্যমই ছিল ঘুড়ি উড়ানো, সুন্দর ঘুড়ি তৈরির প্রতিযোগিতা করা, ঘুড়িতে মাঞ্জা দিয়ে একজন আরেকজনের ঘুড়ি কেটে দেয়া ইত্যাদি। কিন্তু বর্তমানে বিজ্ঞানের চরম উৎকর্ষ এবং শহরায়নের প্রভাবে গ্রামীণ এই ঐতিহ্য বিলুপ্ত। 

এখন শিশু-কিশোর থেকে সকল বয়সের ছেলে-মেয়েদের হাতে হাতে ভিডিও গেমস ডিভাইস এবং মোবাইল ফোন সহজলভ্য হওয়ায় এ সমস্ত গেমসের প্রতি আকৃষ্ট হয়ে পড়েছে। গেমসের নেশায় বুদ হয়ে নাওয়া-খাওয়া বন্ধ করে মোবাইলের স্ক্রিনে এক ধেয়ে দৃষ্টি

দিয়ে থাকে। তাদের আর রোদ্রে সেকেলের ঘুড়ি

উড়ানোর সময় কোথায় ? ফলশ্রুতিতে অতি সহজেই বিলুপ্ত হয়ে গেছে ঘুড়ি উড়ানোর প্রাচীন এই ঐতিহ্য।

উজ্জ্বল শিকদার / ইসরাফিল হোসেন


মন্তব্য করুন

কপোতাক্ষ পরিবারের রানা-রবি পৃথক দুর্ঘটনায় মারাত্মক আহত

উদীচী কেশবপুর শাখার মানবিক সহায়তা প্রদান

বিশ্ব পরিবেশ দিবস ও আমাদের করণীয়: তাপস মজুমদার

কেশবপুরে পরিশোধিত বিদ্যুৎ বিল নিয়ে গ্রাহকদের চরম ভোগান্তি

দেশে ২৪ ঘণ্টায় মৃত্যু ৩০, শনাক্ত ২৮২৮

যবিপ্রবির ল্যাবে ১ জনের কোভিড-১৯ পজিটিভ

প্রেমিকাকে বন্ধুদের হাতে তুলে দিলো প্রেমিক

ঝিনাইদহে আ’লীগ নেতাকে কুপিয়ে হত্যা

দেশে তিন শতাধিক পোশাক কারখানা বন্ধ: বাড়ছে উদ্বেগ এবং কর্মী ছাটাইয়ের আশঙ্কা

মনিরামপুরর ঘূর্নিঝড় আম্ফানে ক্ষতিগ্রস্থ অসহায় পরিবারের মাঝে ঢেউটিন ও নগদ অর্থ বিতরণ

ঠাকুরগাঁওয়ে নতুন করে ৮ জন করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত

মনিরামপুরের মশিয়াহাটীতে বজ্রপাতে যুবকের মর্মান্তিক মৃত্যু

কালীগঞ্জে সুপারি গাছ থেকে পড়ে মৃত্যুর সঙ্গে পাঞ্জা লড়ছে সিয়াম!

কারাগার থেকে জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্র এহসান হাবিব সুমন এর খোলা চিঠি

এসএসসি পরীক্ষাঃ বাংলা দ্বিতীয় পত্রে বেশি নম্বর সহজেই...

যেকোন সময় ঘোষণা হতে পারে ছাত্রদলের কেন্দ্রীয় কমিটি

যশোরে এবার সরকারি চালসহ ঘাতক দালাল নিমূল কমিটির নেতা আটক

৫০ বছর ধরে দল করেও সুবিধা বঞ্চিত আ'লীগের প্রচার সম্পাদক নূরুল হক

যশোরের রাজগঞ্জে ৫৬ যুবকের উদ্যোগে ভাসমান সেতু র্নিমাণ

কেশবপুরের শাহীনের সেই ভ্যানটি উদ্ধার, আটক তিনজন

লালমনিরহাটে এক বিধবা মা বাইসাইকেল চালিয়ে ৪২ বছর স্বাস্থ্যসেবা দিচ্ছেন

নোংরা রাজনীতির শিকার যশোরের এমপি স্বপনের ছেলে শুভ

নারী সহকারীর সঙ্গে ডিসির অশ্লীল ভিডিও ভাইরাল, সংবাদ না করার অনুরোধ

ব্যাচমেট হিসেবে সাইয়েমার পক্ষে সকলের কাছে ক্ষমা চাইলেন কেশবপুরের এসিল্যাণ্ড

আপনার কাছে জনপ্রিয় খেলা কোনটা ?

  ক্রিকেট

  ফুটবল

  ভলিবল

  কাবাডি

অফিস ঠিকানা  

আর এল পোল্ট্রি, উপজেলা রোড, কেশবপুর বাজার, যশোর।
মোবাইলঃ   ০১৭১৯২৮০৮২৭
ইমেইলঃ   info@kopotakkhonews24.com

প্রকাশক ও সম্পাদক 

মোঃ মাহাবুবুর রহমান (মাহাবুর)

মোবাইলঃ   ০১৭১৯২৮০৮২৭
ইমেইলঃ   info@kopotakkhonews24.com

সোশ্যাল মিডিয়ায় আমরা