আজ রবিবার, ৫ জুলাই ২০২০, ২০ আষাঢ় ১৪২৭           আমাদের কথা    যোগাযোগ
Owner

শিরোনাম

  জনপ্রিয় অনলাইন নিউজ পোর্টাল কপোতাক্ষ নিউজের জন্য বাংলাদেশের প্রতিটি জেলা ও উপজেলা পর্যায়ে প্রতিনিধি নিয়োগ চলছে। আগ্রহী প্রার্থীরা ০১৭১৯২৮০৮২৭ নাম্বারে যোগাযোগ করুন।  

কৃষকদের সাথে প্রহসনের শেষ কোথায়?


কৃষকদের সাথে প্রহসনের শেষ কোথায়?

প্রকাশিতঃ বৃহস্পতিবার, মে ২৩, ২০১৯   পঠিতঃ 93555


পৃথিবীর উন্নত দেশসমূহে কৃষকদের জন্য রয়েছে আধুনিক সুযোগ-সুবিধা।  উন্নত দেশ চীন তাদের ধান চাষাবাদের মৌসুমের শুরুতে উৎসব পালন করে সৃষ্টিকর্তার নিকট অধিক ফলনের জন্য প্রার্থনা করে। জাপান তাদের কৃষকদের জন্য সবসময় উন্নত প্রযুক্তির যোগান দেয় যার মাধ্যমে অল্প খরচে স্বল্প পরিশ্রমে কৃষক অধিক ফলন পেতে পারে। উত্তর কোরিয়া এবং দক্ষিণ কোরিয়া তাদের কৃষকদের জন্য অধিক পরিমাণ বাজেট ঘোষণা করে।

উন্নয়নশীল দেশ হিসেবে বর্তমানে বাংলাদেশের অবস্থা খুবই নাজুক এবং বেহাল। কৃষক তার পরিশ্রমের সুফল পাচ্ছে না। ন্যায্যমূল্যের জন্য তাকে রাজপথে নামতে হচ্ছে। একজন  কৃষক রাতদিন পরিশ্রম করে মাথার ঘাম পায়ে ফেলে বাংলার সোনার মাটিতে সোনার ফসল উৎপন্ন করে। কিন্তু দিনশেষে তিনি তার ধানের  ক্ষেতে অভিমান করে আগুন ধরিয়ে দিতে দ্বিধাবোধ করেন  না। 

একটি সুনির্দিষ্ট প্রক্রিয়ার মাধ্যমে কয়েক মাসের ব্যবধানে নির্দিষ্ট মৌসুমে ধান উৎপন্ন করা হয়।  এছাড়া হাওড়,বাওড়,খাল এবং বিল অঞ্চলে যাদের ধানের ক্ষেত থাকে তাদের ক্ষেত অধকাংশ সময় অতিবৃষ্টিতে নষ্ট হয়ে যায়। কোনো কোনো কৃষকের ধান  অনাবৃষ্টি কখনও বা খরার মাধ্যমে নষ্ট হয়ে যায়।শেষ পর্যন্ত  কৃষকের শেষ সম্বল সোনার ধানটুকুও আর ঘরে তোলা হয় না।

ধান উৎপন্ন করতে হলে প্রথমে বাজার থেকে ধানবীজ সংগ্রহ করতে হয়। সেখানেও আরেক সমস্যা! ভেজালের ফলে অনেক বীজে বীজ বিশুদ্ধতার হার এবং জন্মানোর ক্ষমতা থাকে না ফলে সেগুলো অঙ্কুরেই বিনষ্ট হয়ে যায়। তারপর যে বীজগুলোতে ছোট চারাগাছ উৎপন্ন হয় সেগুলো নির্দিষ্ট জমিতে ভূমিকর্ষণ এবং মই দেওয়ার পরে ছিটানো হয়।  তারপর সেগুলো ধীরে ধীরে বড় হতে থাকলে পশুপাখি এবং কীটপতঙ্গ যাতে না খেয়ে যায় সেদিকে সুচতুর দৃষ্টিতে খেয়াল রাখতে হয়। তীব্র শীতে যাতে চারাগাছগুলো মারা না যায় সেজন্য বাজার থেকে পলিমারজাতীয় পলিথিন কিনে সমস্ত ক্ষেত ঢেকে দেওয়া হয়।  পরবর্তীতে কয়েকদিন পর কৃষক নিজে কিংবা কামলাদের দিয়ে চারাগাছগুলো উত্তোলন করে বিস্তৃত পরিসরে ক্ষেতে লাগায়।  তারপর জমিতে কীটপতঙ্গ বিনাশ করতে রাসায়ানিক স্প্রে দেওয়া হয় এবং আগাছাগুলো তুলে ফেলে দেওয়া হয়।  এভাবে কয়েকমাস পর ধান পাকে।তারপর কৃষক সেই পাকা ধান ঘরে তুলে। কৃষক নিজের জন্য পর্যাপ্ত ধান রেখে যখন চাষাবাদের প্রয়োজনীয় খরচ তুলতে ধান বিক্রির জন্য আড়তে যায়  তখন ধানের দামে পড়ে ভাটা। প্রতি কেজি ধান আড়তমালিকরা  ক্রয় করে  দশ থেকে বারো টাকায়। সেগুলো থেকে মহাজনরা চাল তৈরি করে শহরে এবং বিভিন্ন অঞ্চলে বিক্রি করে পঞ্চাশ থেকে ততোধিক টাকা। কিন্তু উপরে বর্ণিত কি কঠিন প্রক্রিয়ার মাধ্যমেই না কৃষক ধান উৎপন্ন করে? 

সাম্প্রতিক টাঙ্গাইল জেলার কালিহাতি উপজেলার পাইকপাড়া ইউনিয়নের বানকিনা গ্রামের কৃষক আব্দুল মালেক তারা পাকা ধানে আগুন ধরিয়ে দেন ক্ষোভ এবং হতাশায় পড়ে। প্রতি দুইমণ ধান বিক্রি করে একজন মজুরকে তার পারিশ্রমিক দিতে হচ্ছে। প্রতিমণে কৃষকের ঘাটতি পড়ছে পাঁঁচশত টাকা থেকে ছয়শতটাকা। জয়পুরহাটে ধানের ন্যায্যমূল্যের দাবিতে মানববন্ধনে রাস্তায় ধান ছিটিয়ে আগুন ধরিয়ে দিয়ে প্রতীকী প্রতিবাদ করেন কৃষক-শ্রমিক সংগঠনগুলি। রাজশাহীর বগুড়াতেও ধানের ন্যায্যমূল্যের দাবিতে কৃষকরা তৎপর হয়ে ওঠে। "পাকা ধানে মই লাগানো" প্রবাদটি আমরা প্রায়ই শুনে থাকি কিন্তু সাম্প্রতিক এক কৃষক ধানের ন্যাযমূল্য না পাওয়ায় তার পাকা ধানে মই লাগিয়েছিল। অতিসাম্প্রতিক সন্তানদের ঈদের পোশাক কিনে দিতে না পারায় আত্মহত্যা করেন এক দরিদ্র কৃষক।

কৃষকদের এই নাজেহাল অবস্থা থেকে মুক্তি  দিতে সরকার বিভিন্ন ব্যবস্থা নিতে পারে।  সরকারি উদ্যোগে ধান কিনতে পারে, কৃষকদের প্রচুর পরিমাণ ভর্তুকি দিতে পারে,কৃষকদের বিনাসুদে অধিক পরিমাণ কৃষিঋণ প্রদান করতে পারে।  কৃষকদের এই সংকটময় পরিস্থিতি কেবল রাষ্ট্রীয় উদ্যোগে সমাধান করা যেতে পারে।

মোঃ ওসমান গনি শুভ
শিক্ষার্থী, পালি এ্যান্ড বুদ্ধিস্ট স্টাডিজ বিভাগ, 
ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়।

মোঃ ওসমান গনি /


মন্তব্য করুন

গাইবান্ধায় বাস চাপায় ২ মোটর সাইকেল আরোহী নিহত

বিএনপি নেতারা আইসোলেশনে থেকে সরকারের দোষ ধরে

ঠাকুরগাঁওয়ে ব্যবসায়ীকে অপহরণ, গ্রেপ্তার-৮

মণিরামপুরে জিম্মি করে রাইচ মিল মিস্ত্রির বাড়ীতে ডাকাতি

যশোর-৬ আসনে ভোট ১৪ জুলাই

যশোর-৬ ও বগুড়া-১ আসনের উপনির্বাচন ১৪ জুলাই

মনিরামপুরে সদ্য বিদায়ী ইউএনও আহসান উল্লাহ শরিফীর পিতার ইন্তেকাল

মনিরামপুর পৌরসভা মাধ্যমিক বালিকা বিদ্যালয়ের সভাপতি হলেন জিএম মজিদ

সাতক্ষীরার বীর মুক্তিযোদ্ধা চিত্তরঞ্জন সরকার কেশবপুরে মারা গেছেন

২৪ ঘণ্টায় মৃত্যু ২৯, শনাক্ত ৩২৮৮

কেশবপুরে স্থগিত উপ-নির্বাচন সম্পন্নের ‌দাবিতে সংবাদ সম্মেলন

বর্তমানের করোনা পূর্বের চেয়েও দ্রুত ছড়ায়

কালীগঞ্জে সুপারি গাছ থেকে পড়ে মৃত্যুর সঙ্গে পাঞ্জা লড়ছে সিয়াম!

কারাগার থেকে জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্র এহসান হাবিব সুমন এর খোলা চিঠি

এসএসসি পরীক্ষাঃ বাংলা দ্বিতীয় পত্রে বেশি নম্বর সহজেই...

যেকোন সময় ঘোষণা হতে পারে ছাত্রদলের কেন্দ্রীয় কমিটি

যশোরে এবার সরকারি চালসহ ঘাতক দালাল নিমূল কমিটির নেতা আটক

৫০ বছর ধরে দল করেও সুবিধা বঞ্চিত আ'লীগের প্রচার সম্পাদক নূরুল হক

যশোরের রাজগঞ্জে ৫৬ যুবকের উদ্যোগে ভাসমান সেতু র্নিমাণ

কেশবপুরের শাহীনের সেই ভ্যানটি উদ্ধার, আটক তিনজন

লালমনিরহাটে এক বিধবা মা বাইসাইকেল চালিয়ে ৪২ বছর স্বাস্থ্যসেবা দিচ্ছেন

নোংরা রাজনীতির শিকার যশোরের এমপি স্বপনের ছেলে শুভ

নারী সহকারীর সঙ্গে ডিসির অশ্লীল ভিডিও ভাইরাল, সংবাদ না করার অনুরোধ

ব্যাচমেট হিসেবে সাইয়েমার পক্ষে সকলের কাছে ক্ষমা চাইলেন কেশবপুরের এসিল্যাণ্ড

আপনার কাছে জনপ্রিয় খেলা কোনটা ?

  ক্রিকেট

  ফুটবল

  ভলিবল

  কাবাডি

অফিস ঠিকানা  

আর এল পোল্ট্রি, উপজেলা রোড, কেশবপুর বাজার, যশোর।
মোবাইলঃ   ০১৭১৯২৮০৮২৭
ইমেইলঃ   info@kopotakkhonews24.com

প্রকাশক ও সম্পাদক 

মোঃ মাহাবুবুর রহমান (মাহাবুর)

মোবাইলঃ   ০১৭১৯২৮০৮২৭
ইমেইলঃ   info@kopotakkhonews24.com

সোশ্যাল মিডিয়ায় আমরা