আজ সোমবার, ১৬ ডিসেম্বর ২০১৯, ২ পৌষ ১৪২৬           আমাদের কথা    যোগাযোগ
Owner

শিরোনাম

  জনপ্রিয় অনলাইন নিউজ পোর্টাল কপোতাক্ষ নিউজের জন্য বাংলাদেশের প্রতিটি জেলা ও উপজেলা পর্যায়ে প্রতিনিধি নিয়োগ চলছে। আগ্রহী প্রার্থীরা ০১৭১৯২৮০৮২৭ নাম্বারে যোগাযোগ করুন।  

পরকীয়া থেকে বেঁচে যাওয়া এক গৃহবধূর গল্প


পরকীয়া থেকে বেঁচে যাওয়া এক গৃহবধূর গল্প

প্রকাশিতঃ বুধবার, আগস্ট ২৮, ২০১৯   পঠিতঃ 102438


পরিচিত এক দম্পতি ৮ বছরের সুখী বিবাহিত জীবন পার করছেন।সংসারে একটা চাঁদের মতো সুন্দরী মেয়ের আছে।বছর দু'য়েক হলো  আচমকা ফেসবুকে আলাপ হওয়া অচেনা প্রেমিকের জন্য  বেআকুল অসম্ভব সুন্দরী গৃহবধূ । অথচ সন্তান ও স্বামীকেও হারাতে চান না। কী ভাবে মোকাবেলা করবেন এই সমস্যার? জীবনের নানা জটিল সমস্যার সমাধান খুঁজতে মাসিক পত্রিকায়  প্রকাশিত একটি প্রতিবেদনের সূত্র ধরে গৃহবধূ  আসলেন ঢাকার মানসিক হাসপাতালে একজন ডাক্তারের কাছে।সেখানেই পরিচয় হয়েছিল ভুক্তভোগী গৃহবধূ  সাথে,তবে গৃহবধূর দাম্পত্য জীবনের কথা বিবেচনা করে ডাক্তার ও ভুক্তভোগী  গৃহবধূ কারো নাম প্রকাশ করতে না পারায়  আন্তরিকভাবে দুঃখিত।তবে সমস্যা থেকে উত্তরণের জন্য ডাক্তার যে সমধান দিয়েছেন।তা বিবাহিত নারী এবং পুরুষের ব্যক্তিগত জীবনে প্রয়োজন হতে পারে। এই কথা বিবেচনা করে পাঠকদের জন্য প্রশ্ন এবং সমাধান তুলে ধরা হলো-

আমি একজন গৃহবধূ। বয়স ২৮ বছর, সংসারে আমার ৬ বছরের একটা কন্যা সন্তান। বছর দু'য়েক  আগে ফেসবুকের মাধ্যমে একজনের সঙ্গে আলাপ হয়। ইদানীং মনে হচ্ছে, আমি ওঁর প্রেমে পড়েছি। আমাদের রিলেশন করে বিয়ে হয়েছিল। স্বামী খুব যত্নবান, সব সময় আমার খেয়াল রাখেন। প্রায় দুই  বছর আগে ফেসবুকে যে ভদ্রলোকের সঙ্গে পরিচয় হয়, তিনি একেবারেই অন্য রকম যা স্বামীর মধ্যে কখনও অনুভব করিনি। উনি আমার সঙ্গে একদিন কথা না বললে যেন পাগল হয়ে যাই। তিন মাস আগে মাত্র একবার প্রেমিককে চুমু খেয়েছি। কিন্তু সেই জাদুস্পর্শ যেন চোখ বুজে এখনও অনুভব করতে পারি। গত ৮ বছরের বিবাহিত জীবনে এমন অভিজ্ঞতা কখনও হয়নি। 

অত্যন্ত ধার্মিক পরিবারে আমার জন্ম, ও বেড়ে ওঠা। বিয়ের আগে কোনও পুরুষ বন্ধুর সঙ্গে ঘনিষ্ঠ হইনি, বাড়ির লোক ছাড়া কারও সঙ্গে ঘুরতে যাইনি। ফেসবুকের চ্যাট হিস্ট্রি ঘুরে-ফিরে প্রায় রোজই পড়ি। বুঝতে পারছি, তিনি আমার ব্যক্তিত্বের সম্পূর্ণ এক অচেনা দিক বিকশিত করেছেন। কিন্তু একই সঙ্গে আমার স্বামীকেও আঘাত করতে চাই না।চাই না হারাতে আমার কলিজার টুকরা সন্তানকেও হারাতে। পরিবারের ছন্দও নষ্ট করতে রাজি নই। আবার প্রেমিকের প্রতি নিজের আবেগও রুখতে পারছি না। আমি পুরোপুরি বিভ্রান্ত। দয়া করে সাহায্য করুন।

উত্তর দিয়েছেন ডাক্তার আপনার মন ভেঙে দিতে চাই না, কিন্তু জেনে রাখুন: নদীর এপার কহে ছাড়িয়া নিঃশ্বাস,ওপারেতে সর্ব সুখ আমার বিশ্বাস। পেশাদারি জীবনে অধিকাংশ সময় এমনই সমস্যার সমাধান আমায় খুঁজে দিতে হয়। সোশ্যাল মিডিয়ায় অচেনা পুরুষ অথবা নারীর সঙ্গে ঘনিষ্ঠ হওয়ার উদাহরণ হামেশা নজরে আসে। মনে রাখবেন, সোশ্যাল মিডিয়ায় পোস্ট করা মন্তব্য, অনুভূতির বহিঃপ্রকাশ বা ছবির সঙ্গে বাস্তবের কোন মিল থাকেনা। এই কারণে সেখানে পুরুষ অথবা নারীকে অনেক বেশি মোহময়, সুন্দর, আকর্ষক ও সংবেদনশীল মনে হওয়া স্বাভাবিক।তাঁদের সেই ভাবমূর্তির সঙ্গে আমাদের কল্পনার প্রেমিক অথবা প্রেমিকার বহু মিল খুঁজে পাই। 

কিন্তু ফেসবুকে পরিচয় হওয়া পুরুষটির উপর আপনার ক্রমে বেড়ে চলা নির্ভরতা নিয়ে আমি উদ্বিগ্ন। আমার পরামর্শ, নিজের বিবাহিত জীবনের প্রতি মনোযোগী হন। স্বামীর সঙ্গে সম্পর্ক আরও মজবুত করে তুলুন। অচেনা পুরুষটির প্রতি আকর্ষণ বোধ করার পিছনে ছোটবেলায় বহিঃজগতের সঙ্গে পর্যাপ্ত সম্পর্ক তৈরি না হওয়াই দায়ী। এছাড়া জীবনের একঘেয়েমি তো রয়েছেই। সুখী এবং সুস্থ জীবনের জন্য বিবাহ-বহির্ভূত সম্পর্কের হাতছানি এড়িয়ে চলুন।সন্তানের কথা বিবেচনা করে নিজেকে সরিয়ে আনুন।আসলে এর সমাধান বলতে নিজের বিবেকে নামক একটি অবচেতন মন।যার সম্পূর্ণ নিয়ন্ত্রণ আপনাকেই করতে হবে।আমরা পরামর্শ দিতে পারি মাত্র। এই রোগের কোন ঔষধ নাই।তাই আপনাকে সেই প্রেমিকের জন্য বেআকুল হওয়া অবচেতন মনটাকে স্বামীর প্রতি স্হাপন করতে হবে।স্বামীকে প্রেমিক ভাবতে হবে অনুভব করতে হবে, প্রেমিকের  মনকে স্বামীর মধ্যে খু্ঁজতে হবে।

হঠাৎ আজ দুই মাসপর সেই গৃহবধূ সাথে দেখা হলো সেই একই হাসপাতালে ডাক্তারের চেম্বারে। তবে আজ কিন্তু সাথে স্বামী, সন্তান ও মিষ্টির প্যাকেট ছিল।সুখী ও স্বাভাবিক জীবনে পরিবারটিকে দেখে খুবই ভালো লাগলো। সকলেই উচিত নিজের ভুল থেকে বেরিয়ে সুখী জীবনযাপন করা।

লেখক, 
মোঃ শাহ্ জালাল. 
একজন গণমাধ্যম কর্মী ও সাবেক ছাত্রনেতা। 
ঢাকা-১২০৫

শাহ্‌ জালাল / কামরুজ্জামান রাজু


মন্তব্য করুন

রাজাকারের তালিকায় মুক্তিযোদ্ধার নাম, মেয়ের প্রতিবাদ

জুতা পায়ে শহীদ মিনারে অধ্যক্ষ, বিক্ষুব্ধ জনতার গণধোলাই

যারা দেশের স্বাধীনতা, সার্বভৌমত্বে বিশ্বাস করে না, তাদের রাজনীতি করার অধিকার নেই: তথ্যমন্ত্রী

মণিরামপুরে বিএনপির দুই গ্রুপের সংঘর্ষ

মুখোশ পরে বিজয় দিবসের অনুষ্ঠানে হামলা, বঙ্গবন্ধু ও প্রথামন্ত্রীর ছবি ভাঙচুর

রাজাকারের তালিকায় মুক্তিযোদ্ধার নাম, মেয়ের প্রতিবাদ

বীর শহীদদের প্রতি জৈন্তাপুর হাট-বাজার ইজারাদারের ফুল দিয়ে শ্রদ্ধা

কপোতাক্ষ নিউজের প্রকাশক ও সম্পাদক এর জন্মদিন আজ

কপোতাক্ষ নিউজের বার্তা সম্পাদক পুত্র সন্তানের বাবা হলেন

মহান বিজয় দিবস উপলক্ষে কয়রা উপজেলা প্রেসক্লাবে আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত

মহান বিজয় দিবস আজ

ইতিহাসের এই দিনে: ১৬ ডিসেম্বর

কালীগঞ্জে সুপারি গাছ থেকে পড়ে মৃত্যুর সঙ্গে পাঞ্জা লড়ছে সিয়াম!

কারাগার থেকে জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্র এহসান হাবিব সুমন এর খোলা চিঠি

যেকোন সময় ঘোষণা হতে পারে ছাত্রদলের কেন্দ্রীয় কমিটি

এসএসসি পরীক্ষাঃ বাংলা দ্বিতীয় পত্রে বেশি নম্বর সহজেই...

৫০ বছর ধরে দল করেও সুবিধা বঞ্চিত আ'লীগের প্রচার সম্পাদক নূরুল হক

যশোরের রাজগঞ্জে ৫৬ যুবকের উদ্যোগে ভাসমান সেতু র্নিমাণ

কেশবপুরের শাহীনের সেই ভ্যানটি উদ্ধার, আটক তিনজন

নোংরা রাজনীতির শিকার যশোরের এমপি স্বপনের ছেলে শুভ

লালমনিরহাটে এক বিধবা মা বাইসাইকেল চালিয়ে ৪২ বছর স্বাস্থ্যসেবা দিচ্ছেন

নারী সহকারীর সঙ্গে ডিসির অশ্লীল ভিডিও ভাইরাল, সংবাদ না করার অনুরোধ

আমি চাই আমাকে দেখে আর দশটা মেয়ে সমাজে প্রতিষ্ঠিত হোক - শ্রাবন্তী অনন্যা

বিএনপি নেতা আবু বকর আবু’র জানাজায় হাজারো মানুষের ঢল

আপনার কাছে জনপ্রিয় খেলা কোনটা ?

  ক্রিকেট

  ফুটবল

  ভলিবল

  কাবাডি

অফিস ঠিকানা  

আর এল পোল্ট্রি, উপজেলা রোড, কেশবপুর বাজার, যশোর।
মোবাইলঃ   ০১৭১৯২৮০৮২৭
ইমেইলঃ   info@kopotakkhonews24.com

প্রকাশক ও সম্পাদক 

মোঃ মাহাবুবুর রহমান (মাহাবুর)

মোবাইলঃ   ০১৭১৯২৮০৮২৭
ইমেইলঃ   info@kopotakkhonews24.com

সোশ্যাল মিডিয়ায় আমরা