আজ সোমবার, ১৬ ডিসেম্বর ২০১৯, ২ পৌষ ১৪২৬           আমাদের কথা    যোগাযোগ
Owner

শিরোনাম

  জনপ্রিয় অনলাইন নিউজ পোর্টাল কপোতাক্ষ নিউজের জন্য বাংলাদেশের প্রতিটি জেলা ও উপজেলা পর্যায়ে প্রতিনিধি নিয়োগ চলছে। আগ্রহী প্রার্থীরা ০১৭১৯২৮০৮২৭ নাম্বারে যোগাযোগ করুন।  

স্কুলের ম্যানেজিং কমিটিতে আবুল বাশারের খুব অভাব


স্কুলের ম্যানেজিং কমিটিতে আবুল বাশারের খুব অভাব

প্রকাশিতঃ শনিবার, অক্টোবর ১৯, ২০১৯   পঠিতঃ 101871


এম. এ. আলিম খান: শিক্ষা জাতির মেরুদন্ড। আর এই শিক্ষা অর্জন করতে হয় বিদ্যালয়ে লেখাপড়ার মাধ্যমে। শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে যারা পাঠদান করেন তারা হলেন শিক্ষক। তাদেরকে বলা হয় মানুষ গড়ার কারিগর। আর এসব বিদ্যালয় ও কারিগরদের পরিচালনা করেন বিদ্যালয় ম্যানেজিং কমিটি বা পরিচালনা পর্ষদ। শিক্ষক, ম্যানেজিং কমিটি, অভিভাবক ও শিক্ষার্থী সবার সম্মিলিত প্রচেষ্টায় একটি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে গড়ে উঠে শিক্ষাবান্ধব পরিবেশ। যেখানে শিক্ষকরা আনন্দের সাথে শিক্ষার্থীদের পাঠদান করে থাকেন।

বেসরকারি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের ম্যানেজিং কমিটি প্রবিধানমালা-২০০৯ এ ম্যানেজিং কমিটির ক্ষমতা ও দায়িত্বে বলা হয়েছে শিক্ষা প্রতিষ্ঠান সুষ্ঠুভাবে পরিচালনা, লেখাপড়ার মান ও সহপাঠ্যক্রমিক কার্যক্রম নিশ্চিতকরণ, শিক্ষক-কর্মচারীদের শৃঙ্খলা বিধান, বিদ্যালয়ের উন্নয়ন ও রক্ষণাবেক্ষণে ম্যানিজিং কমিটি গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখবেন। কিন্তু বিদ্যালয়ে নিয়োগ ও আর্থিক বিষয় নিয়ে ম্যানেজিং কমিটির একটি বড় অংশের বেশি মাথাব্যাথা থাকে। অনেক সদস্য আছেন যারা বছরে একবারও স্কুলে আসেন না। স্কুলে পড়ালেখা ঠিকমত হয় কী না এসব বিষয়ে কোন খোঁজ খবরই রাখেন না।

আজ এমন একজন ম্যানেজিং কমিটির সদস্যের কথা বলবো যার কার্যক্রম সত্যিই ব্যতিক্রমধর্মী এবং প্রশসংসার দাবীদার। স্কুলে আসা-যাওয়ার পথে ছাত্রীদের কেউ ইভটিজিং করে কী না, স্কুলে উপস্থিতি কম কেন, কোন শিক্ষার্থীর বাল্যবিবাহ হয় কী না, আকাশে বিদ্যুৎ চমকালে, প্রচন্ড বর্ষা বা ঝড় হওয়ার কোন সম্ভাবনা হলে তখনই ছুটে যান স্কুলে, শিক্ষার্থীরা খেলাধূলা করতে উপজেলা, জেলা ও বিভাগীয় শহরে গেলে তাদের সাথে যাওয়া, কোন শিক্ষার্থী, শিক্ষক বা এসএমসির সদস্য অসুস্থ হলে ছুটে চলে যান তাকে দেখতে। স্কুলে কোন নির্মাণ বা সংস্কার কাজ হলে নিজেও শ্রমিকদের সাথে কাজ করেন। দীর্ঘ ৮ বছরে কমিটির সদস্য হিসেবে পরিচালনা পর্ষদের প্রত্যেকটি মিটিংএ উপস্থিত হয়েছেন।

আমি এতক্ষণ ধরে যে ব্যক্তির কথা বলছি তিনি হলেন সাতক্ষীরা জেলার শ্যামনগর উপজেলার নওয়াবেঁকীর পূর্ব বিড়ালাক্ষী গ্রামের আবুল বাশার গাজী। যিনি ২০১০ সাল থেকে ২০১৮ সাল একটানা ৮ বছর নওয়াবেঁকীর ছফিরুন্নেছা মাধ্যমিক বালিকা বিদ্যালয়ে পরিচালনা পর্ষদের অভিভাবক সদস্য হিসেবে দায়িত্ব পালন করেছেন। স্কুলে আসা-যাওয়ার পথে ছাত্রীরা কতিপয় বখাটে ছেলেদের কবলে পড়লে, ইভটিজিং এর শিকার হলে কোন অভিযোগ পেলেই সেখানে চলে যান, প্রয়োজনে বখাটেদের বাড়িতে গিয়ে তাদের পিতামাতার সাথে আলোচনা করেন এবং প্রয়োজনে প্রশাসনের ভয় দেখিয়ে বখাটেদের সঠিক পথে ফেরাতে সক্ষম হন। এভাবে কাজ করার ফলে এখন কোন ইভটিজিং এর অভিযোগ পাওয়া যায় না।

আকাশে বিদ্যুৎ চমকালে, প্রচন্ড বৃষ্টি বা ঝড় হওয়ার কোন সম্ভাবনা হলে তখনই স্কুলে ছুটে যান। যদি স্কুল ছুটি না হয়ে থাকে তাহলে দেরিতে ছুটি দিতে বলেন। আর যদি স্কুল ছুটি হয়ে যায় তাহলে ছুটে যান খেয়াঘাটে, গিয়ে খেয়া আটকে রাখেন যাতে প্রচন্ড বৃষ্টি বা ঝড়ের মধ্যে কোন নৌকা যেন না ছাড়ে। বৃষ্টি বা ঝড় থামলে তাদেরপার করে দেন। অনেক সময় নিজের পকেটের পয়সা দিয়ে শিক্ষার্থীদের পার করে দেন। অনেক অভিভাবক আছে যারা ফোন করে তাকে জানায় যে তাদের মেয়ে বাড়িতে এসেছে।

বিভিন্ন সময়ে স্কুলে গিয়ে দেখেন কোন ক্লাসে কত জন উপস্থিত আছে। উপস্থিতি কম হলে শিক্ষকদের সাথে আলোচনা করেন উপস্থিতি এত কম কেন? প্রয়োজনে অনুপস্থিত শিক্ষার্থীদের বাড়িতে দিয়ে খোঁজ নেন কেন তার মেয়ে স্কুলে যায়নি। বিশেষ করে যারা জেএসসি ও এসএসসি পরীক্ষার্থী তারা যদি স্কুলে না আসে তাদের বাড়িতে গিয়ে তাদের বাবা-মাকে বুঝায় যে, মেয়েকে স্কুলে পাঠান কারণ আর কয়েকদিন পরেই পরীক্ষা এখন যদি তারা স্কুলে না যায় তাহলে তারা অন্যদের তুলনায় পিছিয়ে পড়বে।

প্রতিবছর স্কুল পর্যায়ে বিভিন্ন প্রতিযোগিতার আয়োজন করা হয়। বিশেষ করে শীতকালীন ও গ্রীষ্মকালীন জাতীয় স্কুল ক্রীড়া প্রতিযোগিতা। এসময় মেয়েদের খেলার সময় স্কুলে, শ্যামনগর, সাতক্ষীরা, খুলনায় স্যারদের সাথে তিনিও যান এবং মেয়েদের সুবিধা অসুবিধা দেখেন। খেলা শেষে ফিরে এসে যত রাত হোক তাদের বাড়িতে পৌছায় দেন। পিকনিক বা অন্যকোন অনুষ্ঠানে মেয়েরা যেন কষ্ট না পায় সেদিকে সব সময় খেয়াল রাখেন।

কোন বাল্য বিবাহের সংবাদ পেলে ছুটে যান সেই মেয়ের বাড়িতে। তার বাবা-মাকে বুঝিয়ে কয়েকটি বাল্যবিবাহও বন্ধ করেছেন। স্কুলের ক্লাসরুম মেরামতে সময় মিন্ত্রীদের সাথে কাজও করেন। যেটা পারেন না সেটা তদারকি করেন। যদি শুনেছেন কোন শিক্ষার্থী বা শিক্ষক বা এসএমসির সদস্য অসুস্থ্য তখন তাদের বাড়িতে গিয়ে খোঁজ খবর নেন। স্কুলে বা কোচিংয়ে যাতায়াতের সময় রাস্তায় বা অন্য কোথাও যদি মেয়েদের বা বখাটেদের চালচলন খারাপ মনে হয় তাহলে তিনি তাদের ডেকে বুঝান, তা না হলে শিক্ষকদের জানান, তা না হলে তাদের পিতামাতাকে জানায়। এভাবে তিনি তার ৮ বছরের কমিটির সদস্য হিসেবে শিক্ষক ও ছাত্রীদের সাথে সব সময় যোগাযোগ ও সুসম্পর্ক রেখে অভিভাবক সদস্য হিসেবে দায়িত্ব পালন করেছেন। আজ আমাদের স্কুলগুলোতে এরকম আবুল বাশারের খুব অভাব।

দারিদ্রতার কারণে নিজে বেশি লেখাপড়া করতে না পারলেও অসম্ভব শিক্ষানুরাগী একজন মানুষ আবুল বাশার। দ্বিতীয় শ্রেণিতে পড়ার সময় তার বাবা মারা যায়। লোকের বাড়িতে কাজ করে লেখাপড়া করেছেনে আর ২ভাই ও ৩বোনকে মানুষ করেছেন। ৯ম শ্রেণিতে পাশ করে ১০ম শ্রেণিতে উঠলে আর পড়ালেখা করা সম্ভব হয়নি। নওয়াবেঁকী বাজারে একটি তার একটি মুদি দোকান আছে। আবুল বাশারের একটি ছেলে ও দুইটি মেয়ে। বড় মেয়ের বিয়ে হয়েগেছে আর ছোটটি কলেজে পড়ে। ছেলেটি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে তৃতীয় শ্রেণিতে পড়ে।

লেখক: সাংবাদিক ও উন্নয়নকর্মী

এম. এ. আলিম খান / কামরুজ্জামান রাজু


মন্তব্য করুন

রাজাকারের তালিকায় মুক্তিযোদ্ধার নাম, মেয়ের প্রতিবাদ

জুতা পায়ে শহীদ মিনারে অধ্যক্ষ, বিক্ষুব্ধ জনতার গণধোলাই

যারা দেশের স্বাধীনতা, সার্বভৌমত্বে বিশ্বাস করে না, তাদের রাজনীতি করার অধিকার নেই: তথ্যমন্ত্রী

মণিরামপুরে বিএনপির দুই গ্রুপের সংঘর্ষ

মুখোশ পরে বিজয় দিবসের অনুষ্ঠানে হামলা, বঙ্গবন্ধু ও প্রথামন্ত্রীর ছবি ভাঙচুর

রাজাকারের তালিকায় মুক্তিযোদ্ধার নাম, মেয়ের প্রতিবাদ

বীর শহীদদের প্রতি জৈন্তাপুর হাট-বাজার ইজারাদারের ফুল দিয়ে শ্রদ্ধা

কপোতাক্ষ নিউজের প্রকাশক ও সম্পাদক এর জন্মদিন আজ

কপোতাক্ষ নিউজের বার্তা সম্পাদক পুত্র সন্তানের বাবা হলেন

মহান বিজয় দিবস উপলক্ষে কয়রা উপজেলা প্রেসক্লাবে আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত

মহান বিজয় দিবস আজ

ইতিহাসের এই দিনে: ১৬ ডিসেম্বর

কালীগঞ্জে সুপারি গাছ থেকে পড়ে মৃত্যুর সঙ্গে পাঞ্জা লড়ছে সিয়াম!

কারাগার থেকে জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্র এহসান হাবিব সুমন এর খোলা চিঠি

যেকোন সময় ঘোষণা হতে পারে ছাত্রদলের কেন্দ্রীয় কমিটি

এসএসসি পরীক্ষাঃ বাংলা দ্বিতীয় পত্রে বেশি নম্বর সহজেই...

৫০ বছর ধরে দল করেও সুবিধা বঞ্চিত আ'লীগের প্রচার সম্পাদক নূরুল হক

যশোরের রাজগঞ্জে ৫৬ যুবকের উদ্যোগে ভাসমান সেতু র্নিমাণ

কেশবপুরের শাহীনের সেই ভ্যানটি উদ্ধার, আটক তিনজন

নোংরা রাজনীতির শিকার যশোরের এমপি স্বপনের ছেলে শুভ

লালমনিরহাটে এক বিধবা মা বাইসাইকেল চালিয়ে ৪২ বছর স্বাস্থ্যসেবা দিচ্ছেন

নারী সহকারীর সঙ্গে ডিসির অশ্লীল ভিডিও ভাইরাল, সংবাদ না করার অনুরোধ

আমি চাই আমাকে দেখে আর দশটা মেয়ে সমাজে প্রতিষ্ঠিত হোক - শ্রাবন্তী অনন্যা

বিএনপি নেতা আবু বকর আবু’র জানাজায় হাজারো মানুষের ঢল

আপনার কাছে জনপ্রিয় খেলা কোনটা ?

  ক্রিকেট

  ফুটবল

  ভলিবল

  কাবাডি

অফিস ঠিকানা  

আর এল পোল্ট্রি, উপজেলা রোড, কেশবপুর বাজার, যশোর।
মোবাইলঃ   ০১৭১৯২৮০৮২৭
ইমেইলঃ   info@kopotakkhonews24.com

প্রকাশক ও সম্পাদক 

মোঃ মাহাবুবুর রহমান (মাহাবুর)

মোবাইলঃ   ০১৭১৯২৮০৮২৭
ইমেইলঃ   info@kopotakkhonews24.com

সোশ্যাল মিডিয়ায় আমরা