আজ শনিবার, ৬ জুন ২০২০, ২২ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৭           আমাদের কথা    যোগাযোগ
Owner

শিরোনাম

  জনপ্রিয় অনলাইন নিউজ পোর্টাল কপোতাক্ষ নিউজের জন্য বাংলাদেশের প্রতিটি জেলা ও উপজেলা পর্যায়ে প্রতিনিধি নিয়োগ চলছে। আগ্রহী প্রার্থীরা ০১৭১৯২৮০৮২৭ নাম্বারে যোগাযোগ করুন।  

আজ গোলাপ ঝরার দিন, দুঃসহ স্মৃতি জাগানিয়া দিন


আজ গোলাপ ঝরার দিন, দুঃসহ স্মৃতি জাগানিয়া দিন

প্রকাশিতঃ রবিবার, নভেম্বর ৩, ২০১৯   পঠিতঃ 107919


আজ গোলাপ ঝরে পড়ার দিন। কিশোরগঞ্জবাসীর দুঃসহ বেদনার দিন। যে গোলাপের সৌরভে বাঙালি জাতি তথা কিশোরগঞ্জবাসী মহান মুক্তিযুদ্ধের টালমাটাল দিনগুলোতে আমোদিত হয়েছিল।

সাহসে বুক বেঁধে পাকহানাদার বাহিনীর বিরুদ্ধে রণাঙ্গনে ঝাঁপিয়ে পড়েছিল-১৯৭৫ সালের এই দিনে ঝড়ে পড়লেন সেই গোলাপ। ঢাকা কেন্দ্রীয় কারাগারে বন্দি অবস্থায় অন্য তিন জাতীয় নেতা তাজউদ্দিন আহমেদ, ক্যাপ্টেন এম মনসুর আলী এবং এইচএম কামরুজ্জামানের সঙ্গে মুক্তিযুদ্ধকালীন মুজিবনগর সরকারের অস্থায়ী রাষ্ট্রপতি কিশোরগঞ্জ সদর উপজেলার বীর দামপাড়া গ্রামে গোলাপ মিয়া হিসেবে পরিচিত সৈয়দ নজরুল ইসলামকে নৃশংসভাবে হত্যা করা হয়।

এ দিনটি উপলক্ষে সৈয়দ নজরুল ইসলামের বীর দামপাড়া গ্রামের বাড়িতে, জেলা আওয়ামী লীগ অফিসে আলোচনা সভা, মিলাদ মাহফিল ও কাঙালিভোজের আয়োজন করা হয়েছে। শোক র‌্যালি ও শোক সভার আয়োজন করেছে জেলা প্রশাসন।

কিশোরগঞ্জ সদর উপজেলার যশোদল ইউনিয়নের ছায়া সুনিবিড় নিভৃত পল্লী বীর দামপাড়া গ্রামের এক সম্ভ্রান্ত মুসলিম পরিবারে ১৯২৫ সালে সৈয়দ নজরুল ইসলামের জন্ম হয়। তার বাবার নাম সৈয়দ আবদুর রইস এবং মাতার নাম বেগম নুরুন্নাহার খাতুন। তিন ভাইবোনের মধ্যে সৈয়দ নজরুল ইসলাম ছিলেন মধ্যম। ছেলেবেলায় তার নাম ছিল গোলাপ। গ্রামের বাড়িতেই তার বাল্য শিক্ষা শুরু হয়। সরকারি চাকুরে তার বাবা আবদুর রইস এলাকাবাসীর কাছে সাহেব বাড়ির রইস মিয়া নামেই সমধিক পরিচিত ছিলেন।

সৈয়দ নজরুল ইসলাম ময়মনসিংহ জিলা স্কুল এবং আনন্দমোহন কলেজ থেকে কৃতিত্বের সঙ্গে প্রবেশিকা ও আইএ পরীক্ষায় পাস করেন। ১৯৪৭ সালে তিনি ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় থেকে ইতিহাস বিষয়ে প্রথম শ্রেণীতে এমএ এবং ১৯৫৩ সালে এলএলবি ডিগ্রি লাভ করেন। তার সহধর্মিণীর নাম নাফিসা ইসলাম। ডাক নাম অহিদন।

১৯৪৯ সালে তিনি পাকিস্তান সেন্ট্রাল সুপিরিয়র সার্ভিস পরীক্ষায় উর্ত্তীণ হয়ে কর বিভাগে অফিসার হিসেবে যোগদান করেন। দুই বছর পর তিনি চাকরি থেকে ইস্তফা দিয়ে ময়মনসিংহের আনন্দমোহন কলেজে ইতিহাস বিভাগে অধ্যাপক হিসেবে যোগদান করেন। কিছুদিন পর এ পেশাও ছেড়ে তিনি আইন ব্যবসায় এবং রাজনীতিতে মনোনিবেশ করেন।

১৯৪৩-১৯৪৭ সালে সলিমুল্লাহ হল ছাত্র সংসদের ভিপিও ছিলেন তিনি। ভাষা আন্দোলনেও গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখেন। ১৯৫৭ সালে ময়মনসিংহ জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি এবং ১৯৬৪ সালে দলের কেন্দ্রীয় কমিটির সহ-সভাপতি নির্বাচিত হয়ে ১৯৭২ সাল পর্যন্ত এ পদে সমাসীন ছিলেন। বাঙালির মুক্তি সনদ ছয় দফা প্রণীত হওয়ার পর শেখ মুজিবুর রহমানকে বার বার কারারুদ্ধ করে রাখা হয়।

ওই সংকটময় সময়ে বঙ্গবন্ধুর অনুপস্থিতিতে (১৯৬৬-১৯৬৯) গুরুদায়িত্ব পালন করেন তিনি। ১৯৭০ ও ১৯৭৩ সালের নির্বাচনের পর সৈয়দ নজরুল ইসলাম আওয়ামী লীগের সংসদীয় দলের উপনেতাও নির্বাচিত হন। ১৯৭১ সালের ২৬ মার্চ রাতে বঙ্গবন্ধুকে গ্রেফতার করে পাকিস্তানের কারাগারে নিয়ে গেলে গোটা জাতি এক ভয়াবহ সংকটে নিপতিত হয়। শুরু হয় গৌরবময় মুক্তিযুদ্ধ। ১৯৭১ সালের ১০ এপ্রিল কুষ্টিয়ার মেহেরপুরের বৈদ্যনাথ তলায় গঠিত হয় মুক্তিযুদ্ধকালীন প্রবাসী বাংলাদেশ সরকার। বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানকে রাষ্ট্রপতি আর সৈয়দ নজরুল ইসলামকে করা হয় ওই সরকারের উপ-রাষ্ট্রপতি।

ওয়ান-ইলেভেনের সামরিক বাহিনী সমর্থিত সরকারের সময় আওয়ামীলীগ সভাপতি বঙ্গবন্ধু কন্যা প্রধান মন্ত্রী শেখ হাসিনা কারারুদ্ধ হলে সৈয়দ নজরুল ইসলামেরই সুযোগ্য প্রয়াত পুত্র নির্মোহ নেতা সৈয়দ আশরাফুল ইসলাম মুখপাত্র হিসাবে বাংলাদেশ আওয়ামীলীগের দুর্দিনের কাণ্ডারীর ভূমিকায় অবতীর্ণ হন এবং নেত্রীকে কারামুক্তসহ ক্ষমতায় ও সরকার গঠনে অসামান্য অবদান রাখেন। আর সে আস্থাও বিশ্বাসের জায়গা থেকেই তিনি বেসামরিক বিমান পরিবহন ও পর্যটন প্রতিমন্ত্রী,বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক, এলজিআরডি মন্ত্রী এবং জনপ্রশাসন মন্ত্রীর মতো গুরুত্বপূর্ণ পদে দায়িত্ব পালনের সুযোগ পান।

সৈয়দ আশরাফুল ইসলামের মৃত্যুর পর তাঁর শূন্য কিশোরগঞ্জ-০১ (সদর-হোসেনপুর) আসন থেকে উপনির্বাচনে শহীদ সৈয়দ নজরুল ইসলামের কন্যা ডা.জাকিয়া নূর লিপিকে দলীয় মনোনয়নে নির্বাচিত করে আওয়ামীলীগ সভানেত্রী প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা তার হাতে শহীদ সৈয়দ নজরুল ইসলামের পরিবারের ঝাণ্ডা তুলে দিলেন।

এ ছাড়া আওয়ামী লীগ ক্ষমতায় এসে শহীদ সৈয়দ নজরুল ইসলামের স্মৃতি রক্ষায় কিশোরগঞ্জ শহরে শহীদ সৈয়দ নজরুল ইসলাম আধুনিক স্টেডিয়াম ও তাঁর নিজ পৈত্রিক ভিটার উপকন্ঠে শহীদ সৈয়দ নজরুল ইসলাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল স্থাপন করে।

ইসরাফিল হোসেন / ইসরাফিল হোসেন


মন্তব্য করুন

মনিরামপুরে টিন-টাকা পাওয়া ক্ষতিগ্রস্থদের বাড়ি পরিদর্শনে ইউএনও

যশোরে ক্ষুধার্ত হনুমানের কামড়ে ৩ দিনে ১২ জন আহত

চুয়াডাঙ্গায় পাঁচ এসআইসহ আরো ১১ জন করোনা শনাক্ত

যুগ্মসচিব হলেন যশোরের ডিসি

যশোর রোড অবরোধ করে থানার সামনে বিজেপি’র অবস্থান-বিক্ষোভ

জনবান্ধব ও সফল ইউপি চেয়ারম্যান মোশাররফ হোসেন

মনিরামপুরের শ্যামকুড়ে আম্পানে কেড়ে নিল দিনমজুরের বাসস্থান, পায়নি কোন সহায়তা

কেশবপুরে অনলাইনে চিত্রাংকন ক্লাসের উদ্বোধন

হিলি স্থল বন্দরে আমদানি-রপ্তানী চালু করতে সীমান্তের শুন্যরেখায় ব্যবসায়ীদের বৈঠক

কপোতাক্ষ পরিবারের রানা-রবি পৃথক দুর্ঘটনায় মারাত্মক আহত

উদীচী কেশবপুর শাখার মানবিক সহায়তা প্রদান

বিশ্ব পরিবেশ দিবস ও আমাদের করণীয়: তাপস মজুমদার

কালীগঞ্জে সুপারি গাছ থেকে পড়ে মৃত্যুর সঙ্গে পাঞ্জা লড়ছে সিয়াম!

কারাগার থেকে জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্র এহসান হাবিব সুমন এর খোলা চিঠি

এসএসসি পরীক্ষাঃ বাংলা দ্বিতীয় পত্রে বেশি নম্বর সহজেই...

যেকোন সময় ঘোষণা হতে পারে ছাত্রদলের কেন্দ্রীয় কমিটি

যশোরে এবার সরকারি চালসহ ঘাতক দালাল নিমূল কমিটির নেতা আটক

৫০ বছর ধরে দল করেও সুবিধা বঞ্চিত আ'লীগের প্রচার সম্পাদক নূরুল হক

যশোরের রাজগঞ্জে ৫৬ যুবকের উদ্যোগে ভাসমান সেতু র্নিমাণ

কেশবপুরের শাহীনের সেই ভ্যানটি উদ্ধার, আটক তিনজন

লালমনিরহাটে এক বিধবা মা বাইসাইকেল চালিয়ে ৪২ বছর স্বাস্থ্যসেবা দিচ্ছেন

নোংরা রাজনীতির শিকার যশোরের এমপি স্বপনের ছেলে শুভ

নারী সহকারীর সঙ্গে ডিসির অশ্লীল ভিডিও ভাইরাল, সংবাদ না করার অনুরোধ

ব্যাচমেট হিসেবে সাইয়েমার পক্ষে সকলের কাছে ক্ষমা চাইলেন কেশবপুরের এসিল্যাণ্ড

আপনার কাছে জনপ্রিয় খেলা কোনটা ?

  ক্রিকেট

  ফুটবল

  ভলিবল

  কাবাডি

অফিস ঠিকানা  

আর এল পোল্ট্রি, উপজেলা রোড, কেশবপুর বাজার, যশোর।
মোবাইলঃ   ০১৭১৯২৮০৮২৭
ইমেইলঃ   info@kopotakkhonews24.com

প্রকাশক ও সম্পাদক 

মোঃ মাহাবুবুর রহমান (মাহাবুর)

মোবাইলঃ   ০১৭১৯২৮০৮২৭
ইমেইলঃ   info@kopotakkhonews24.com

সোশ্যাল মিডিয়ায় আমরা