আজ শুক্রবার, ২৪ জানুয়ারী ২০২০, ১১ মাঘ ১৪২৬           আমাদের কথা    যোগাযোগ
Owner

শিরোনাম

  জনপ্রিয় অনলাইন নিউজ পোর্টাল কপোতাক্ষ নিউজের জন্য বাংলাদেশের প্রতিটি জেলা ও উপজেলা পর্যায়ে প্রতিনিধি নিয়োগ চলছে। আগ্রহী প্রার্থীরা ০১৭১৯২৮০৮২৭ নাম্বারে যোগাযোগ করুন।  

যাদের নিয়ে আওয়ামী লীগ বিব্রত


যাদের নিয়ে আওয়ামী লীগ বিব্রত

প্রকাশিতঃ মঙ্গলবার, ডিসেম্বর ১০, ২০১৯   পঠিতঃ 75411


এবার কাউন্সিল অধিবেশনে আওয়ামী লীগের মূল মন্ত্রই হলো শুদ্ধ আওয়ামী লীগ। দুর্নীতিমুক্ত, সন্ত্রাস, চাঁদাবাজ মুক্ত একটা আওয়ামী লীগ। যারা দলের ত্যাগি, পরীক্ষিত তাদেরকে মূল্যায়ন করার মাধ্যমে বঙ্গবন্ধুর আদর্শের আওয়ামী লীগের নবযাত্রার সূচনা। এই পরিপ্রেক্ষিতেই আওয়ামী লীগ তার কাউন্সিল অধিবেশন করছে। এর মধ্যে জেলা পর্যায়ে যে সম্মেলনগুলো হচ্ছে সেই সম্মেলনগুলোতে দলের অনুপ্রবেশকারী এবং বিতর্কিতদের বাদ দেওয়া হচ্ছে। আওয়ামী লীগে এরকম কিছু নেতা পাওয়া গেছে যাদের দলের বাইরে ইমেজ খুবই নেতিবাচক। দল তাদের জন্য প্রায় বিব্রতকর অবস্থার মধ্যে পড়ে। কিন্তু নানা পারিপাশ্বিকতা এবং জটিলতার কারণে তাদেরকে দল থেকে সরিয়ে দেওয়া যাচ্ছে না। আওয়ামী লীগের জন্য তারা যেন একটা প্রয়োজনীয় ‘বিষফোঁড়া’। এই সমস্ত নেতাদের নিয়ে আওয়ামী লীগ কি করবে সে ব্যাপারে দলের মধ্যে রয়েছে নানা মত ও পদ। অনেকে মনে করেন, দুষ্টু গরুর চেয়ে শুন্য গোয়াল ভালো। আবার অনেকে মনে করেন, কৌশলগত কারণে এখনই তাদের বাদ দেওয়া শোভন এবং সমীচীন না। যাদের নিয়ে আওয়ামী লীগ বিব্রত তাদের কয়েকজনের মধ্যে রয়েছেন;

শাজাহান খান

গত মেয়াদে মন্ত্রী ছিলেন। এই মেয়াদে মন্ত্রীত্ব না পেলেও এমপি আছেন। একের পর এক নানা রকম বিতর্কিত মন্তব্য এবং কর্মকাণ্ডের জন্য তিনি দলের বাইরে ব্যাপক সমালোচিত। সাম্প্রতিক সময় তিনি পরিবহন ফেডারেশনের এক সভায় নিরাপদ সড়ক আন্দোলনের নেতা চিত্রনায়ক ইলিয়াস কাঞ্চনের বিরুদ্ধে নানা রকম অসত্য মন্তব্য করেছেন। এছাড়া তিনি ফরিদপুরের এমপি নিক্সন চৌধুরীর সঙ্গেও বিরোধে জড়িয়ে গেছেন। স্থানীয় পর্যায়ে তার সঙ্গে আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক বাহাউদ্দীন নাছিমের বিরোধ অনেক পুরনো। পরিবহন শ্রমিকদের অঘোষিত ধর্মঘট এবং নিরাপদ সড়কের পথে অন্যরকম বাধা মনে করে সাধারণ মানুষ। দলের মধ্যেও তাকে নিয়ে নানা রকম সমালোচনা আছে। তারপরেও শ্রমিক বেল্টে তার বিশাল প্রভাব বলয় থাকার কারণে বিব্রত হলেও আওয়ামী লীগ তাকে নিয়ে নিরব।

নিজাম হাজারী

ফেনীতে এক সময় জয়নাল হাজারীর একচ্ছত্র আধিপত্য ছিল। এখন ফেনীর রাজত্ব নিজাম হাজারীর হাতে। তার বিরুদ্ধে নানা অভিযোগ। তবে এই অভিযোগগুলোর কোনটা সত্য আর কোনটা মিথ্যা তা যাচাই করার মতো  কেউ নেই। কারণ নিজাম হাজারীর বিরুদ্ধে কথা বলার মতো লোক ফেনীতে পাওয়া যাবে না। তবে গণমাধ্যমে তাকে নিয়ে মাঝে মধ্যেই নানা রকম সংবাদ প্রকাশিত হয়। সাধারণ মানুষের মুখ দিয়ে নিজাম হাজারীর ইমেজ খুবই নেতিবাচত। তারপরেও ফেনীতে তার প্রভাব বলয় এবং রাজনীতিতে কৌশলগত কারণে তার বিরুদ্ধে ব্যবস্থা গ্রহণ করা যাচ্ছে না।

হুইপ শামসুল হক                                      

হুইপ শামসুল হক শুদ্ধি অভিযানের সময় বিতর্কিত হন। তাকে নিয়ে নানা রকম বিতর্ক আছে এবং তার ইমেজ নেতিবাচক। শুদ্ধি অভিযানের সময় তাদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা গ্রহণের কথা বার্তা শোনা গেলেও পরবর্তীতে তা মাঝ পথেই থেমে যায়। আওয়ামী লীগের এই হুইপ প্রভাবশালী হলেও চট্টগ্রামের বাইরে তার ইমেজ খুবই নেতিবাচক। রাজনীতিতে কৌশলগত কারণে তার বিরুদ্ধেও ব্যবস্থা নিতে পারছে না আওয়ামী লীগ।

নুরুন্নবী চৌধুরী শাওন

নুরুন্নবী চৌধুরী শাওন যুব লীগের প্রেসিডিয়াম সদস্য ছিলেন। তার বিরুদ্ধে অনৈতিক টেন্ডারবাজিসহ নানা অভিযোগ রয়েছে। শুদ্ধি অভিযানের শুরুতেই তার ব্যাংক হিসেব তলব করা হয়েছিল। এছাড়া আইনি প্রকিয়াও শুরু করা হয়েছিল। কিন্তু সেই আইনি প্রক্রিয়ার তেমন কোনো অগ্রগতি হয়নি। এর আগে নুরুন্নবী চৌধুরী শাওনের চালকের রহস্যজনক মৃত্যু ঘটনার রহস্য আজও উন্মোটিত হয়নি। নুরুন্নবী চৌধুরী শাওন কি কারণে আওয়ামী লীগের জন্য অপরিহার্য তা নিয়ে খোদ আওয়ামী লীগের মধ্যেই প্রশ্ন রয়েছে।

শামীম ওসমান

যদিও শামীম ওসমানকে নিয়ে এখন বিতর্ক অনেক কম। তবে নারায়নগঞ্জে শামীম ওসমান আর সেলিনা হায়াতের বিরোধ পুররো এবং চর্চিত। শামীম ওসমানের জন্য দুই ধরণের বক্তব্যই পাওয়া যায়। আওয়ামী লীগের জন্য নিবেদিত প্রাণ তিনি। কিন্তু আওয়ামী লীগের বাইরে তার ইমেজ নিয়ে অনেক প্রশ্ন রয়েছে।

এই সমস্ত ব্যক্তি দলের জন্য অ্যাসেট না লিয়াবিলিটি সেই প্রশ্ন থাকতেই পারে। কারণ অনেকেই মনে করেন তারা দলের কাছে এক রকমের বোঝা হয়ে আছেন। কারণ তাদের ইমেজের কারণেই সারা দেশে আওয়ামী সম্পর্কে মানুষের কাছে নেতিবাচক ধারণা তৈরি হয়। আবার অনেকে মনে করেন দলের জন্য এরা ইতিবাচক কারণ এরা ছাড়া ঐ এলাকার সংগঠন ধরে রাখা অনেক কঠিন। ইতিবাচক না নেতিবাচক সেই বিতর্ক এড়িয়ে সবার দৃষ্টি আগামী ২০ ও ২১ ডিসেম্বর কাউন্সিলের দিকে। সেই কাউন্সিলে তাদের কি অবস্থান হয় সেটাই দেখার বিষয়। বাংলা  ইনসাইডার

ইসরাফিল হোসেন / ইসরাফিল হোসেন


মন্তব্য করুন

দেশে হিন্দুত্বের নামে হিন্দুদের বদনাম করা হচ্ছে : মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়

বিএসএফের গুলিতে আরও ৪ বাংলাদেশি নিহত

ইদলিবে সন্ত্রাসী হামলায় সিরিয়ার ৪০ সেনা নিহত, আহত অনেক

রোহিঙ্গাদের সুরক্ষায় মিয়ানমারের প্রতি আন্তর্জাতিক আদালতের গুরুত্বপূর্ণ ৪ নির্দেশ

ঢাকা সিটি নির্বাচন: কারচুপির বিরুদ্ধে বিএনপি'র হুঁশিয়ারি এবং সিইসির বক্তব্য

যশোরে ১২ ফুট লম্বা গাঁজা গাছসহ আটক ১

মণিরামপুরে দুই বিঘা জমির ক্ষীরা গাছ কেটে দিল দুর্বৃত্তরা

এবার শার্শা সীমান্তে বাংলাদেশী রাখালকে নির্যাতন করে হত্যা করল-বিএসএফ

কয়রায় বাল্য বিবাহ প্রতিরোধে অভিভাবক সমাবেশ

কয়রা থানায় ‘ওপেন হাউজ ডে’ অনুষ্ঠিত

অসুস্থ মেধাবী ছাত্রকে দেখতে হাসপাতালে এমপি বাবু

১৭তম শিক্ষক নিবন্ধন পরীক্ষার বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ

কালীগঞ্জে সুপারি গাছ থেকে পড়ে মৃত্যুর সঙ্গে পাঞ্জা লড়ছে সিয়াম!

কারাগার থেকে জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্র এহসান হাবিব সুমন এর খোলা চিঠি

যেকোন সময় ঘোষণা হতে পারে ছাত্রদলের কেন্দ্রীয় কমিটি

এসএসসি পরীক্ষাঃ বাংলা দ্বিতীয় পত্রে বেশি নম্বর সহজেই...

৫০ বছর ধরে দল করেও সুবিধা বঞ্চিত আ'লীগের প্রচার সম্পাদক নূরুল হক

যশোরের রাজগঞ্জে ৫৬ যুবকের উদ্যোগে ভাসমান সেতু র্নিমাণ

কেশবপুরের শাহীনের সেই ভ্যানটি উদ্ধার, আটক তিনজন

নোংরা রাজনীতির শিকার যশোরের এমপি স্বপনের ছেলে শুভ

লালমনিরহাটে এক বিধবা মা বাইসাইকেল চালিয়ে ৪২ বছর স্বাস্থ্যসেবা দিচ্ছেন

নারী সহকারীর সঙ্গে ডিসির অশ্লীল ভিডিও ভাইরাল, সংবাদ না করার অনুরোধ

আমি চাই আমাকে দেখে আর দশটা মেয়ে সমাজে প্রতিষ্ঠিত হোক - শ্রাবন্তী অনন্যা

বিএনপি নেতা আবু বকর আবু’র জানাজায় হাজারো মানুষের ঢল

আপনার কাছে জনপ্রিয় খেলা কোনটা ?

  ক্রিকেট

  ফুটবল

  ভলিবল

  কাবাডি

অফিস ঠিকানা  

আর এল পোল্ট্রি, উপজেলা রোড, কেশবপুর বাজার, যশোর।
মোবাইলঃ   ০১৭১৯২৮০৮২৭
ইমেইলঃ   info@kopotakkhonews24.com

প্রকাশক ও সম্পাদক 

মোঃ মাহাবুবুর রহমান (মাহাবুর)

মোবাইলঃ   ০১৭১৯২৮০৮২৭
ইমেইলঃ   info@kopotakkhonews24.com

সোশ্যাল মিডিয়ায় আমরা