আজ শনিবার, ২৬ সেপ্টেম্বর ২০২০, ১০ আশ্বিন ১৪২৭           আমাদের কথা    যোগাযোগ

শিরোনাম

  প্রতিনিধি হইতে ইচ্ছুকরা ০১৭৪৭৬০৪৮১৫ নাম্বারে যোগাযোগ করুন।  

নিজের গাড়ি ভেঙ্গে আ'লীগ-ছাত্রলীগের নামে মামলা করল উপজেলা চেয়ারম্যান


নিজের গাড়ি ভেঙ্গে আ'লীগ-ছাত্রলীগের নামে মামলা করল উপজেলা চেয়ারম্যান

প্রকাশিতঃ বুধবার, আগস্ট ১২, ২০২০   পঠিতঃ 22113


কিশোরগঞ্জের নিকলীতে চাকরি দেয়ার কথা বলে এক ব্যক্তির কাছ থেকে উৎকোচ নেয়ার অভিযোগ উঠেছে উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যানের বিরুদ্ধে।

অভিযোগ আছে, উৎকোচের টাকা ফেরত চাওয়ায় অভিযোগকারীসহ উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও ছাত্রলীগ নেতাদের বিরুদ্ধে সরকারি গাড়ি ভাঙচুরের মিথ্যা মামলা করেছেন ওই চেয়ারম্যান। এ ঘটনায় থানায় পাল্টাপাল্টি মামলা হয়েছে।
তবে অভিযোগ অস্বীকার করেছেন নিকলী উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান আহসান রুহুল কুদ্দুস জনি।

আর পুলিশ জানিয়েছে, নিরাপরাধ কাউকে হয়রানি করা হবে না।
মালির চাকরি দেয়ার কথা বলে নিকলী উপজেলার খালিশার হাটি এলাকার জনৈক কামরুল ইসলামের কাছ থেকে ২ লাখ টাকা নেন উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান আহসান রুহুল কুদ্দুস জনি। তবে চাকরি না পেয়ে গত ২৬ জুলাই বাড়ি থেকে অফিসে ফেরার পথে স্থানীয় অডিটরিয়ামের সামনের রাস্তায় চেয়ারম্যানের গাড়ি থামিয়ে টাকা ফেরত দেয়ার দাবি জানান কামরুল।
এ নিয়ে উভয়পক্ষের মধ্যে ধাক্কাধাক্কির ঘটনা ঘটে। কিন্তু ওই দিন বিকেলে কামরুলসহ আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক সাইফুল ইসলাম ও সদর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান শাহরিয়ার আহমেদ তুলিপকে আসামি করে নিকলী থানায় একটি মামলা দায়ের করেন। এতে তার সরকারি গাড়ির গ্লাস ভাঙচুর করা হয় বলে উল্লেখ করা হয়। অপরদিকে উপজেলা চেয়ারম্যানসহ ৩ জনকে আসামি করে থানায় মামলা দায়ের করেন কামরুলও।
কিশোরগঞ্জের নিকলী উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান আহসান রুহুল কুদ্দুস জনি বলেন, সাবেক উপজেলা চেয়ারম্যান সাইফুল ইসলাম এবং সদর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান শাহরিয়ার আহমেদ তুলিপের উপস্থিতিতে এবং তাদের আদেশে আমার ওপর আক্রামণাত্বকভাবে আঘাত করা হয়। এ সময় সরকারি গাড়ি ভাঙচুর এবং আমার লোকজনদের ওপর হামলা করা হয়।
উৎকোচ প্রধানকারী মো. কামরুল ইসলাম বলেন, সালাম দেয়ার পর তিনি (চেয়ারম্যান আহসান রুহুল কুদ্দুস জনি) গাড়ি থেকে নামেন। তারপর আমি বলি, ভাই আমি তো গরিব মানুষ টাকা পাই দিয়ে দেন। পরে তিনি বলেন টাকা না দিলে কী করতে পারবি, বেশি বাড়াবাড়ি করলে তোকে আমি এ গাড়ি ভাঙার মামলা দেব। যে মামলায় কোনোদিন বাঁচতে পারবি না।
এদিকে চেয়ারম্যানের অবৈধ টাকা নেয়ার বিষয়টি ভিন্নদিকে প্রবাহিত করতে মিথ্যা মামলা করা হয়েছে দাবি করে ক্ষুব্ধ হন স্থানীয় আওয়ামী লীগ নেতাকর্মীরা। তাদের অভিযোগ প্রতিপক্ষের লোকজনকে ফাঁসাতে গাড়ি ভাঙচুরের নাটক সাজানো হয়েছে।
এমনকি উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান রিয়াজুল হক আয়াজ দাবি করেন, ঘুষের টাকা চাওয়াকে কেন্দ্র করে কামরুলের সঙ্গে তর্কাতর্কি হওয়ার পর পরই চেয়ারম্যান গাড়িসহ তার বাসায় এসে এ ঘটনা জানায়। তখন গাড়িটি অক্ষত ছিল। সিসি টিভির ফুটেজেও ওই সময় গাড়িটি অক্ষত দেখা যায়।
কিশোরগঞ্জ নিকলী উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান রিয়াজুল হক আয়াজ বলেন, আমার বাসায় যখন আসছেন তখন তো গাড়ি ভাঙা দেখিনি। আমার সঙ্গে কথা বলেছেন, ছেলেদের নামে নালিশ করেছেন, পরে গাড়ি ভাঙচুরের ঘটনা শুনে আমি নিজেও আশ্চর্য হয়ে গেছি। আমার বাসা থেকে যাওয়ার পর ইউএনও সাহেবের গাড়িটা যেখানে রাখা হয় সেখানে গিয়ে গাড়িটা রেখেছে। তার দুই/চার মিনিট পর গাড়ি আবার পরিষদের চেয়ারম্যানের চেম্বারের সামনে সেটি রেখে দোতালায় উঠেছেন তিনি। কিছুক্ষণ পরে লিটন এবং তুষার গাড়িটা ভেঙছে। গাড়ির যে চালক আমি তার সঙ্গে কথা বলে এসব বিষয় জেনেছি।
নিকলী সদর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান শাহরিয়ার আহমেদ তুলিপ বলেন, গাড়ি যদি ভাঙা হয়ে থাকে সেই জায়গায় দোকানপাট আছে, সেসব লোকজনদের জিজ্ঞাসা করতে পারেন এখানে কোনো গাড়িতে হামলা বা ভাঙা হয়েছে কিনা। উপজেলা পরিষদের গাড়ির গ্যারেজে রেখে তার গাড়ির চালককে দিয়ে ভাঙানো হয়েছে।  
নিকলী উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক সাইফুল ইসলাম বলেন, এটা নিয়ে তীব্র ক্ষোভ জানিয়েছেন নেতাকর্মী ও এলাকাবাসীরা।
নিজেই সরকারি গাড়ি ভেঙে মিথ্যা মামলা দায়ের করা হয়েছে দাবি করে স্থানীয় এমপি আফজাল হোসেন (আসন- ৫) জানান, তদন্ত শেষে বিষয়টি প্রমাণিত হবে। নিকলী থানায় দায়ের হওয়া পাল্টাপাটি দু’টি মামলাই তদন্ত করছে পুলিশ।
তিনি বলেন, সরকারি গাড়ি নিজের গাড়ি, বেসরকারি চালক দিয়ে চালানো এটি একটি অপরাধ। আরেকটি অপরাধ হবে যদি সে নিজে গাড়িটি ভেঙে থাকে। এটা যদি প্রমাণিত হয়, পুলিশি তদন্তে বের হয়ে আসলে এটা আইনানুগভাবে যা ব্যবস্থা নেয়ার দরকার সেটা হবে। সে বিএনপিকে নিয়ে এভাবে আমার দলকে ধ্বংস করে ফেলবে, এটা আমরা কোনো অবস্থাতেই হতে দেব না।
নিরাপরাধ কাউকে মিথ্যা মামলায় হয়রানি করা হবে না বলে জানান নিকলী থানা পুলিশ কর্মকর্তা।
নিকলী থানার ওসি মো. শামছুল আলম সিদ্দিকী বলেন, অনেক তথ্য পেয়েছি। তবে সেটি তদন্তের স্বার্থে বলা যাবে না। তদন্তে যে দোষী হবেন তার বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে। আর নির্দোষ হলে ছাড়া পাবেন। যেহেতু তদন্ত শেষ হয়নি সেহেতু কিছু বলা যাচ্ছে না।
গত নির্বাচনে নিকলী উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও উপজেলা পরিষদের সাবেক চেয়ারম্যান সাইফুল ইসলামকে হারিয়ে চেয়ারম্যান নির্বাচিত হন স্বতন্ত্র প্রার্থী আহসান রুহুল কুদ্দুস জনি।

মোঃ আলাউদ্দিন / মোঃ আলাউদ্দিন


মন্তব্য করুন

২ দিনের কর্মসূচি ঘোষণা করেছে আন্দোলনরত শ্রমিকরা

দেশ স্থিতিশীল থাকুক একটা গোষ্ঠী তা চায় না : প্রধানমন্ত্রী

অবৈধপথে ক্ষমতা দখলে ষড়যন্ত্রের গলি খুঁজছে বিএনপি

বৃদ্ধা মাকে বাড়ি ছাড়া করল সন্তান

কক্সবাজারে গণহারে পুলিশ বদলি: পুলিশকে আইনআনুগ আচরণে বাধ্য করতে বিশেষজ্ঞের আহ্বান

সার্কভুক্ত দেশগুলোকে নিবিড় সহযোগিতার আহ্বান বাংলাদেশের পররাষ্ট্রমন্ত্রীর

ভারতে প্রায় ৭ কোটি মানুষের নমুনা পরীক্ষা, করোনা আক্রান্তের সংখ্যা ৫৮ লাখ ছাড়াল

ক্ষমতা দখলে বিএনপি ষড়যন্ত্রের অলিগলি খুঁজে বেড়াচ্ছে : ওবায়দুল কাদের

রাজনৈতিক নয় এখন সময় অর্থনৈতিক কূটনীতির: প্রধানমন্ত্রী

শিক্ষা প্রকৌশল অধিদপ্তরের ১২টি পদে মোট ১ হাজার ১৯৪ জনকে নিয়োগের জন্য বিজ্ঞপ্তি

এই দিন দিন না, সামনে আরো দিন আছে : রিজভী

রাজশাহীর একমাত্র করোনা বিষায়িত হাসপাতাল বন্ধ

কালীগঞ্জে সুপারি গাছ থেকে পড়ে মৃত্যুর সঙ্গে পাঞ্জা লড়ছে সিয়াম!

কারাগার থেকে জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্র এহসান হাবিব সুমন এর খোলা চিঠি

এসএসসি পরীক্ষাঃ বাংলা দ্বিতীয় পত্রে বেশি নম্বর সহজেই...

যেকোন সময় ঘোষণা হতে পারে ছাত্রদলের কেন্দ্রীয় কমিটি

যশোরে এবার সরকারি চালসহ ঘাতক দালাল নিমূল কমিটির নেতা আটক

৫০ বছর ধরে দল করেও সুবিধা বঞ্চিত আ'লীগের প্রচার সম্পাদক নূরুল হক

যশোরের রাজগঞ্জে ৫৬ যুবকের উদ্যোগে ভাসমান সেতু র্নিমাণ

লালমনিরহাটে এক বিধবা মা বাইসাইকেল চালিয়ে ৪২ বছর স্বাস্থ্যসেবা দিচ্ছেন

কেশবপুরের শাহীনের সেই ভ্যানটি উদ্ধার, আটক তিনজন

নোংরা রাজনীতির শিকার যশোরের এমপি স্বপনের ছেলে শুভ

ব্যাচমেট হিসেবে সাইয়েমার পক্ষে সকলের কাছে ক্ষমা চাইলেন কেশবপুরের এসিল্যাণ্ড

নারী সহকারীর সঙ্গে ডিসির অশ্লীল ভিডিও ভাইরাল, সংবাদ না করার অনুরোধ

আমাদের নিউজ পোর্টাল আপনার কেমন লাগে ?

  খুব ভালো

  ভালো

  খুব ভালো না

  ভালো লাগে না

অফিস ঠিকানা  

আর এল পোল্ট্রি, উপজেলা রোড, কেশবপুর বাজার, যশোর।
মোবাইলঃ   ০১৭১৯২৮০৮২৭
ইমেইলঃ   info@kopotakkhonews24.com

প্রকাশক ও সম্পাদক 

মোঃ মাহাবুবুর রহমান (মাহাবুর)

মোবাইলঃ   ০১৭১৯২৮০৮২৭
ইমেইলঃ   info@kopotakkhonews24.com

সোশ্যাল মিডিয়ায় আমরা