আজ শনিবার, ২৪ অক্টোবর ২০২০, ৯ কার্তিক ১৪২৭           আমাদের কথা    যোগাযোগ

শিরোনাম

  প্রতিনিধি হইতে ইচ্ছুকরা ০১৭৪৭৬০৪৮১৫ নাম্বারে যোগাযোগ করুন।  

বেনাপোল দিয়ে ইলিশ গেল ১৫ ট্রাক, পেঁয়াজ আসেনি একটিও!


বেনাপোল দিয়ে ইলিশ গেল ১৫ ট্রাক, পেঁয়াজ আসেনি একটিও!

প্রকাশিতঃ শনিবার, সেপ্টেম্বর ১৯, ২০২০   পঠিতঃ 42336


টানা ছয় দিন পেঁয়াজের ট্রাক আটকে রেখে পর পর দুই বার প্রতিশ্রুতি দিয়েও একটি ট্রাকও বাংলাদেশে প্রবেশের অনুমতি দেয়নি ভারতীয় কাস্টমস। এতে বাধ্য হয়ে লোকসান কমাতে অনেক আমদানিকারক তাদের ট্রাক পেট্রাপোল বন্দর থেকে বের করে পেঁয়াজ খোলাবাজারে বিক্রি করছেন।

কেউ আবার ভোমরা ও হিলিবন্দর সচল থাকায় সে বন্দরে নিয়ে গেছেন। তীব্র গরমে আটকে থাকা পেঁয়াজের অধিকাংশ খাবারের অনুপযোগী হতে চলেছে বলে জানা গেছে।
তবে ভারতীয় পেঁয়াজ আমদানি বন্ধ থাকলেও শনিবার (১৯ সেপ্টেম্বর) বেনাপোল বন্দর দিয়ে ভারতে ঢুকেছে আরো ১৫ ট্রাকে ৮৪ মে.টন ইলিশ।  
এদিকে, বেনাপোল বন্দর দিয়ে পেঁয়াজ আমদানি অনিশ্চিত হয়ে পড়ায় বন্দর এলাকায় এখনো কমেনি দাম। পাইকারী বাজারে কেজি ৬০ টাকা আর খুচরা বাজারে এখনও ৭০ টাকা পর্যন্ত বিক্রি হচ্ছে। এতে নিত্যপ্রয়োজনীয় খাদ্য দ্রবটি অনেকে না কিনেই বাড়ি ফিরছেন।
বেনাপোল আমদানি-রফতানি সমিতির সহ-সভাপতি আমিনুল হক বলেন, ক্রয়কৃত পেঁয়াজের চালান ভারতীয় কাস্টমস অনিয়ম করে আটকে বাণিজ্য চুক্তি ভঙ্গ করেছে।
এতে ব্যবসায় যে ক্ষতি করলো তাতে অনেক ব্যবসায়ী পুঁজি হারিয়ে পথে বসবে। আগামীতে যাতে এমন আচরণ তারা না করতে পারে তার জন্য রাষ্ট্রীয়ভাবে দুই দেশের বাণিজ্যিক বৈঠকে আলোচনা করা দরকার বলে জানান তিনি।
বেনাপোল কাস্টমস কার্গো শাখার রাজস্ব কর্মকর্তা আকছির উল্লীন মোল্লা জানান, শনিবার অন্যান্য পণ্য ঢুকলেও আটকপড়া কোনো পেঁয়াজের ট্রাক প্রবেশ করেননি। তবে ট্রাক ঢুকলে কাস্টমস গ্রহণে প্রস্তুত রয়েছে।
বেনাপোল বন্দরের মৎস্য ও মান নিয়ন্ত্রণ অফিসের পরিদর্শক আসওয়াদুল আলম জানান, বিশেষ অনুমতিতে পূজা উপলক্ষে গত ৬ দিনে বেনাপোল বন্দর দিয়ে ভারতে ঢুকেছে ২৭ লাখ ১৫ হাজার ৫২০ ডলার মূল্যের ৩০০ মে. টন ৩৮০ কেজি ইলিশ।
জানা যায়, দেশের বাইরে রফতানি নিষিদ্ধ থাকলেও বাণিজ্য আর বন্ধুত্বপূর্ণ সম্পর্ক জোরদার করতে বাংলাদেশ সরকার পূজা উপলক্ষে ১৪৫০ মে.টন ইলিশ দেয় ভারতকে। এর প্রথম চালানে গত ১৪ সেপ্টেম্বর ভারতে ৪৮ মে. টন ইলিশ প্রবেশ করার দিনই সংকট দেখিয়ে বাংলাদেশে বন্ধ করে দেয়া হয় পেঁয়াজ রফতানি। ঠিক গত বছরের ২৯ সেপ্টেম্বর যেদিন ভারতকে ৫০০ মে.টন ইলিশ দেয়া হয়েছিল ঠিক সেদিনও একই কারণ দেখিয়ে তারা বাংলাদেশে বন্ধ করে দেয় পেঁয়াজের  ট্রাক প্রবেশ।

মোঃ আলাউদ্দিন / মোঃ আলাউদ্দিন


মন্তব্য করুন

কেশবপুরে পুলিশের অভিযানে ওয়ারেন্ট ও নিয়মিত মামলায় ১২ জন গ্রেফতার

গোলাম রববানীর কবিতা 'মাটির দেহ আজ মাটিতে লুটিয়ে'

সনাতন ধর্ম নিয়ে কটুক্তি করায় যবিপ্রবি শিক্ষার্থীর ছাত্রত্ব বাতিল

রুহুল কবির রিজভীর রোগ মুক্তি কামনায় কেশবপুরে মিলাদ ও দোয়া অনুষ্ঠিত

বিএনপি নেতা-কর্মীদের সাথে এখন কেউ মেয়ের বিয়ে দিতেও চায় না : হানিফ

কেশবপুরে পৌর মেয়রের মন্ডপ পরিদর্শন ও সুরক্ষা সামগ্রী বিতরণ

রাজশাহীতে এবারও কুমারী পূজা পালিত

কোটচাঁদপুরে গলায় ফাঁস দিয়ে এক শ্রমিকের আত্মহত্যা

৬০০ শিক্ষার্থীকে বৃত্তি দিবে মুক্তিযোদ্ধা কল্যাণ ট্রাস্ট

স্থল নিম্নচাপের কারণে সমুদ্রবন্দরে তিন নম্বর সতর্কতা সংকেত

ঐতিহ্য ও সংস্কৃতির সংস্করণ হচ্ছে নৌকা বাইচ: শাহীন চাকলাদার এমপি

প্রবীণ আইনজীবী ব্যারিস্টার রফিক-উল হকের মৃত্যুতে সংস্কৃতি প্রতিমন্ত্রীর শোক

কালীগঞ্জে সুপারি গাছ থেকে পড়ে মৃত্যুর সঙ্গে পাঞ্জা লড়ছে সিয়াম!

কারাগার থেকে জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্র এহসান হাবিব সুমন এর খোলা চিঠি

এসএসসি পরীক্ষাঃ বাংলা দ্বিতীয় পত্রে বেশি নম্বর সহজেই...

যেকোন সময় ঘোষণা হতে পারে ছাত্রদলের কেন্দ্রীয় কমিটি

যশোরে এবার সরকারি চালসহ ঘাতক দালাল নিমূল কমিটির নেতা আটক

৫০ বছর ধরে দল করেও সুবিধা বঞ্চিত আ'লীগের প্রচার সম্পাদক নূরুল হক

যশোরের রাজগঞ্জে ৫৬ যুবকের উদ্যোগে ভাসমান সেতু র্নিমাণ

লালমনিরহাটে এক বিধবা মা বাইসাইকেল চালিয়ে ৪২ বছর স্বাস্থ্যসেবা দিচ্ছেন

কেশবপুরের শাহীনের সেই ভ্যানটি উদ্ধার, আটক তিনজন

নোংরা রাজনীতির শিকার যশোরের এমপি স্বপনের ছেলে শুভ

ব্যাচমেট হিসেবে সাইয়েমার পক্ষে সকলের কাছে ক্ষমা চাইলেন কেশবপুরের এসিল্যাণ্ড

নারী সহকারীর সঙ্গে ডিসির অশ্লীল ভিডিও ভাইরাল, সংবাদ না করার অনুরোধ

আমাদের নিউজ পোর্টাল আপনার কেমন লাগে ?

  খুব ভালো

  ভালো

  খুব ভালো না

  ভালো লাগে না

অফিস ঠিকানা  

আর এল পোল্ট্রি, উপজেলা রোড, কেশবপুর বাজার, যশোর।
মোবাইলঃ   ০১৭১৯২৮০৮২৭
ইমেইলঃ   info@kopotakkhonews24.com

প্রকাশক ও সম্পাদক 

মোঃ মাহাবুবুর রহমান (মাহাবুর)

মোবাইলঃ   ০১৭১৯২৮০৮২৭
ইমেইলঃ   info@kopotakkhonews24.com

সোশ্যাল মিডিয়ায় আমরা